একটি জাতীয় পত্রিকায় ও সোশাল মিডিয়াতে নেপালে অনুষ্ঠিতব্য কর্মশালা সর্ম্পকে তার বিরুদ্ধে মিথ্যা ও বানোয়াট খবর প্রকাশে তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছেন চাকমা সার্কেল চীফ ব্যারিষ্টার দেবাশীষ রায়।

২৭ মার্চ চাকমা রাজা দেবাশীষ রায়ের স্বাক্ষর করা বিভিন্ন গণমাধ্যমে পাঠানো এক বিবৃতিতে তিনি এই প্রতিবাদ ও নিন্দা জানিয়েছেন।

বিবৃতিতে বলা হয়, প্রকাশিত খবরে বাংলাদেশের স্বার্থের বিরুদ্ধে ও পার্বত্য চুক্তি বিরুদ্ধে অবস্থান গ্রহনসহ তার বিরুদ্ধে যে অভিযোগ আনা হয়েছে তা সম্পূর্ন অসত্য,বানোয়াট,মানহানিকর ও উদ্দেশ্য প্রনোদিত। যা অত্যন্ত পরিতাপের বিষয় এবং তার নামে কুপ্রচারনায় ও মানহানির ব্যর্থ প্রচেষ্টার মাত্র, যা বেআইনী ও আইনগত দন্ডনীয় অপরাধের মধ্য পড়ে। বিবৃতিতে এ ধরনের কূপ্রচারণা ঠেকানোর জন্য তিনি সকলের কাছে সহযোগিতার কামনা করেছেন।

বিবৃতিতে বলা হয়, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সাহসী ও প্রজ্ঞাবান নেতৃত্বে ১৯৯৭ সালে পার্বত্য চট্টগ্রাম চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়। এই চুক্তি বাস্তবায়নে পক্ষে তিনি (চাকমা রাজা) শুরু থেকেই ছিলেন ও ভবিষ্যতেও থাকবেন।

চাকমা রাজা তার বিবৃতিবে আরো বলেন, ২৭ ও ২৮ মার্চ নেপালে অনুষ্ঠিতব্য কর্মশালায় তিনি অংশ নিয়েছেন। কর্মশালায় পার্বত্য চুক্তির পূর্নাঙ্গ বাস্তবায়নসহ এ অঞ্চলের সামাজিক স্থিতিশীলতা আয়ন, সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি প্রতিষ্ঠা তথা সমগ্র দেশের সামগ্রিক উন্নয়নের বিষয়ে আলোচিত হয়। এছাড়া এ কর্মশালায় পার্বত্য চট্টগ্রামের প্রেক্ষিতে দেশের পঞ্চবার্ষিকী পরিকল্পনা ও অন্যান্য উন্নয়ন নীতিমালা,টেক্সসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা(এসডিজি) এবং জলবায়ু পরিবর্তন মোকাবেলা বিষয়ে আলোচনা হয়।