বাংলাদেশসহ আরও কয়েকটি দেশে নিজেদের কার্যক্রম বন্ধ করেছে সংগীতভিত্তিক অ্যাপ ইয়োন্ডার মিউজিক।

২৩ মার্চ, শুক্রবার প্রতিষ্ঠানটি তাদের ফেসবুক পেজে এ সংক্রান্ত একটি নির্দেশনা প্রকাশ করে। তবে এতে অ্যাপটির বন্ধ হওয়ার কারণ জানানো হয়নি। দায়িত্বশীল একটি সূত্রে জানা গেছে ‘দেউলিয়া’ হয়ে যাওয়ায় নিজেদের কার্যক্রম বন্ধ করেছে ইয়োন্ডার মিউজিক।

অ্যাপটির ফেসবুক পেজে বলা হয়, ‘আমরা দুঃখের সঙ্গে জানাচ্ছি যে আগামী ২৩ মার্চ শুক্রবার থেকে আমরা আমাদের কার্যক্রম স্থগিত করছি।’

শুধু বাংলাদেশে নয়, মালয়েশিয়াতেও নিজেদের কার্যক্রম বন্ধ করেছে ইয়োন্ডার মিউজিক। স্থানীয় একটি সংবাদমাধ্যমের বরাতে জানা যায়, দেশটির সেলকম বা এক্সপ্যাক্স গ্রাহকরা ইয়োন্ডার মিউজিক আর ব্যবহার করতে পারবেন না। এ ছাড়া সংবাদমাধ্যমগুলোতে বলা হয়, যখন অ্যাপটি কেউ চালু করছে তখন তাদের স্ক্রিনে ভেসে উঠছে ‘গুডবাই ফ্রম ইয়োন্ডার’ লেখাটি।

এদিকে অ্যাপটি বন্ধ হওয়ায় আক্ষেপ ও দুঃখ প্রকাশ করেছেন ফেসবুক ব্যবহারকারীরা। অতৃপ্ত মন নামে একজন ফেসবুক ব্যবহারকারী লিখেছেন, ‘অযথা হয়রানি কেন করেন আপনারা বুঝি না। এ্যপস (অ্যাপস) বন্ধ করে দিলেন কেন? মনে রাখবেন বাটপারির ফল ভালো হয় না।’

হাসিবুল হায়দার নামে একজন ইংরেজিতে অক্ষরে লিখেছেন, ‘এই অ্যাপ-এর তুলনা হয় না। বাট এই অ্যাপস যদি আর চালু না করেন রবি সিম ইউজ করা বন্ধ করে দেব। প্রমিজ!’

এ বিষয়ে দেশে অ্যাপটির অংশীদারত্ব প্রতিষ্ঠান রবি আজিয়াটা লিমিটেড ২৩ মার্চ সন্ধ্যায় এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, ‘মালয়েশিয়ার আজিয়াটা গ্রুপ বারহাদ অথবা বাংলাদেশে তার মালিকানাধীন কোম্পানি রবি আজিয়াটা লিমিটেডের ইয়োন্ডার মিউজিক কোম্পানিতে কোনো মালিকানা নেই। ইয়োন্ডার মিউজিক বাংলাদেশে রবি এবং এয়ারটেল ব্রান্ড ব্যবহারকারীদের সেবা দিয়ে আসছিল। তথাপি, ইয়োন্ডার মিউজিক কোম্পানির দেউলিয়াত্বের সাথে রবি আজিয়াটা লিমিটেড বা আজিয়াটা গ্রুপ বারহাদের কোনো সম্পর্ক নেই।’

উল্লেখ্য, রবির সঙ্গে চুক্তির মাধ্যমে ২০১৬ সালের মে মাসে দেশে চালু হয় ইয়োন্ডার মিউজিক। প্রায় ২৩ মাসের মাথায় বন্ধ হলো এই অ্যাপটি।