ময়মনসিংহের গৌরীপুরে রবিদাস (হিন্দু) সম্প্রদায়ের বসত বাড়িতে ভাংচুর করে নতুন বাড়ি তৈরী করার মালামাল নিয়ে যাওয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ সময় বেশ কিছু সিমেন্টের বস্তা, ৫ বান টিন, ৮টি সিমেন্টের খুটি, ঘরের আসবাব পত্রসহ আনুমানিক ৫০হাজার টাকার মালামাল লুটপাট করেছে।

গত রবিবার (১১ফেব্রুয়ারী) মধ্যরাতে উপজেলার ময়লা কান্দা ইউনিয়নের গোবিন্দপুর গ্রামের মধ্য বাজারের মৃত মোহন লাল রবিদাসের ছেলে সুনিল রবিদাসের বসত বাড়িতে ভাংচুর ও লুটপাটের ঘটনা ঘটনায় একই এলাকার ২০/২২ জন যুবক।

বাড়ির মালিক সুনিল রবিদাস বলেন, পরিবারের সদস্য সংখ্যা বেড়ে যাওয়ায় ছোট কুড়েঘর ভেঙ্গে বড় করে একটি দু’চালা টিনের ঘর তৈরী করার সিদ্ধান্ত নেই। এক সপ্তাহ আগে একই গ্রামের ফজর আলীর ছেলে জুয়েল (২৬), আহাম্মদ আলীর ছেলে রুবেল (২৪), কাদির মিয়ার ছেলে বিল্লাল (২৩) আমার কাছে ৩০ হাজার টাকা চাঁদা করে।

টাকা দিতে অস্বীকৃতি জানালে গত রবিবার (১১ ফেব্রুয়ারী) মধ্যরাতে ২০/২২ জন যুবক বাড়িতে ভাংচুর চালিয়ে লুটপাট করে। তারা ঘরের আসবাবপত্রও নিয়ে যায়।ভাংচুর ও লুটপাটের সময় বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের কেন্দ্রীয় উপ-কমিটির সাবেক সহ-সম্পাদক মোর্শেদুজ্জামাম সেলিমের ভাতিজা অপু ও ভাগ্নে তুহিন উপস্থিত ছিলেন। তাদের হাতে পায়ে ধরেও আমরা বসত ভিটা রক্ষা করতে পারেনি।
গৌরীপুর থানার ওসি সংবাদ মাধ্যমকে বলেন, রবিদাস সম্প্রদায়ের উপর হামলার ঘটনাটি শুনেছি। কিন্তু কেউ কোন অভিযোগ করেনি। অভিযোগ দায়ের করলে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে বলেও জানান তিনি।