শুক্রবার ঢাকার লালমাটিয়ার চারুশিল্পী সংসদ গ্যালারীতে সমাজে যুবউদ্যোগ বিনির্মাণে ফিল্ম তৈরির কৌশল, প্রকল্প প্রস্তাবনা ও প্রতিবেদন শীর্ষক দিনব্যাপী এক কর্মশালা অনুষ্ঠিত হয়েছে।
ইন্সটিটিউট ফর এনভাইরনমেন্ট এন্ড ডেভেলপমেন্ট (আইইডি) র সহযোগীতায় জনউদ্যোগের উদ্যোগে এই কর্মশালাটি উনুষ্ঠিত হয়। কর্মশালায় মোট ৩৫ জন আদিবাসী এবং বাঙ্গালী যুবক যুবতী অংশ নেয়।

কর্মশালায় প্রশিক্ষক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সূর্য দীঘল বাড়ি চলচ্চিত্রের নির্মাতা মশিউদ্দিন শাকের, তপ্রুন চিত্রশিল্পী ও চলচ্চিত্র নির্মাতা প্রদীপ ঘোষ, বিশিষ্ট চিত্রগ্রাহক এবং প্রশিক্ষক পঙ্কজ পালিত, আইইডির সমন্বয়ক জ্যোতি চট্টোপাধ্যায়। এছাড়াও কর্মশালায় উপস্থিত ছিলেন জনউদ্যোগ জাতীয় কমিটির আহ্বায়ক ডাকসুর সাবেক সাধারণ সম্পাদক ডাঃ মোশতাক হোসেন।
চলচ্চিত্র নির্মাতা মশিউদ্দিন শাকের কর্মশালায় অংশগ্রহনকারীদের উদ্যেশ্যে বলেন, একটি মানবিক বোধই মানুষকে অনেক বড় বড় কাজ করতে উদ্বুদ্ধ করতে পারে। সামাজিক দায়বদ্ধতা না থাকলে ভাল সিনেমা নির্মান করা যায়না। শিল্পের জগতে চলচ্চিত্র হচ্ছে মানুষের কাছে পৌছানোর সবচেয়ে শক্তিশালী মাধ্যম। শোষণের নিরুদ্ধে লড়াইয়ের জন্য চলচিত্র অনেক বড় হাতিয়ার হতে পারে।
এরপর চিত্রগ্রাহক এবং প্রশিক্ষক পঙ্কজ পালিত ক্যামেরা দিয়ে কিভাবে একটি গল্পকে দর্শকদের কাছে উপস্থাপন করা যায় তার প্রাথমিক ধারনা দেন।
তরুন চলচ্চিত্র নির্মাতা প্রদীপ ঘোষ সিনেমার ইতিহাস এবং সিনেমার ভাষা বিষয়ক আলোচনা করেন।
বিকেলে আইইডির সমন্বয়ক জ্যোতি চট্টোপাধ্যায় প্রকল্প প্রস্তাবনা ও প্রতিবেদন তৈরীর কলাকৌশল নিয়ে আলোকপাত করেন।