রাঙামাটিতে সোমবার থেকে চার দিন ব্যাপী যুব গেমস উদ্বোধন করা হয়েছে।

রাঙামাটি কুমার সমিত রায় জিমনেসিয়ামে ফেস্টুন উড়িয়ে গেমসের উদ্বোধন করেন রাঙামাটি রিজিয়ন কমান্ডার ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মোঃ গোলাম ফারুক। জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ মানজারুল মান্নানের সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি ছিলেন পুলিশ সুপার সাঈদ তারিকুল হাসান। এসময় অন্যান্যর মধ্যে উপস্থিত ছিলেন রাঙামাটি সদর জোন কমান্ডার লেঃ কর্নেল রেদওয়ান, পার্বত্য চট্টগ্রাম আঞ্চলিক পরিষদ সদস্য হাজী হামাল উদ্দীন,রাঙামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদ সদস্য সবির কুমার চাকমা, জেলা ক্রীড়া সংস্থার সহ-সভাপতি সুনীল কান্তি দে, সাধারন সম্পাদক বরুন বিকাশ দেওয়ান প্রমুখ।

এর আগে বেলুন উড়িয়ে রাঙামাটি জেলায় যুব গেমস এর উদ্বোধন করেন প্রধান অতিথি। এছাড়া জেলা প্রশাসন চত্বর থেকে জেলা জিমনেসিয়াম চত্বর পর্ষন্ত বেরা করা হয় বর্নাঢ্য র‌্যালী। র‌্যালিটি শহরের বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে কুমার সমিত রায় জিমনেসিয়ামে গিয়ে শেষ হয়ে আলোচনাসভায় মিলিত হয়। র‌্যালীতে খেলোয়াড়, ক্রীড়ামোদীসহ বিভিন্ন ক্রীড়া সংগঠনের কর্মকর্তারা অংশ নেন।

আলোচনা সভার পর কারাতে ও জুডো খেলার প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়। রাঙামাটি জেলায় আয়োজিত এই যুব গেমস্ এর অনুর্ধ্ব ১৭ বালক ও বালিকাদের জন্য চারটি ইভেন্টস কারাতে,জুডো, বক্সিং ও ব্যাটমিটন প্রতিযোগিতা আগামী ২২ ডিসেম্বর পর্ষন্ত চলবে।

বাংলাদেশ অলিম্পিক অ্যাসোসিয়েশনের তত্ত্বাবধানে তৃণমূল পর্যায় হতে খোলোয়াড় খুঁজে বের করার লক্ষ্যে বাংলাদেশ যুব গেমস অনুষ্ঠিত হচ্ছে বলে জানান জেলা ক্রীড়া সংস্থা কর্মকর্তারা। এ গেমস এর মাধ্যমে দলীয়ভাবে পুরষ-মহিলা ফুটবল, বাস্কেটবল, হকিতে সেরা দল এবং ব্যক্তিগত ইভেন্টে অ্যাথলেটিকস, সাঁতার’সহ বিভিন্ন ইভেন্টের জন্য সেরা খেলোয়াড় বাছাই করা হবে।