Published On: সোম, সেপ্টে ১১, ২০১৭

খাগড়াছড়িতে ২ প্রতিবন্ধী কিশোরীকে ধর্ষণ, আটক ১

Share This
Tags

খাগড়াছড়িতে ২ প্রতিবন্ধী কিশোরী ধর্ষণের শিকার হয়েছে। রোববার সন্ধ্যায় জেলার মাটিরাঙা উপজেলার জুম্মপাড়া এলাকায় বুদ্ধি প্রতিবন্ধী কিশোরীকে(১৮) ধর্ষণ করে প্রতিবেশী ছন্নু মিয়ার ছেলে নুরুল আলম। এলাকাবাসী তাকে আটক করে পুলিশে সোর্পদ করেছে।
মাটিরাঙা পৌরসভার কাউন্সিলর এমরান হোসেন জানান, রোববার সন্ধ্যা সাতটার দিকে নিজ বাড়িতে বোনের কন্যা শিশুকে নিয়ে শুয়ে ছিল প্রতিবন্ধী ওই কিশোরী। কিশোরীকে একা পেয়ে ঘরের ঢুকে নুরুল আলম। নুরুল আলম ও কিশোরীর অস্বাভাবিক আচরণে শিশুর কান্নায় বাড়ির লোকজনরা ছুঁটে এসে নুরুল আলমকে আটক করে। পরবর্তীতে এলাকাবাসীরা এসে তাকে পুলিশে সোপর্দ করে।
মাটিরাঙা থানার অফিসার ইনচার্জ(ওসি) সাহাদাত হোসেন টিটু রোববার রাতে মুঠোফোনে জানান, নুরুল আলমকে আসামী করে কিশোরীর পিতা (আবু দাউদ মিয়া) বাদী হয়ে থানায় অভিযোগ দায়ের করেছে। সোমবার সকালে কিশোরীকে শারীরিক পরীক্ষার জন্য খাগড়াছড়ি হাসপাতালে প্রেরণ করা হবে। আটককৃত যুবককে আদালতে প্রেরণ করা হবে।
অপরদিকে, একইদিন সকালে খাগড়াছড়ি জেলা সদরের পানখাইয়াপাড়া এলাকায় প্রতিবন্ধী আরেক কিশোরী(২০) ধর্ষণের শিকার হয়েছে। রোববার রাতে খাগড়াছড়ি সদর থানায় ধর্ষণের ঘটনায় কিশোরীর বড় ভাই বাদী হয়ে মামলা দায়ের করেছেন।
কিশোরীর বড় ভাই (কজ্য মারমা) জানান, রোববার ভোরে হাটঁতে বের হলে আনন্দনগর এলাকার আলমগীর মিস্ত্রীর ছেলে শাহাদত হোসেন তার বোনকে রাস্তার উপর জোরপূর্বক ধর্ষণ করে। এসময় তার চিৎকারে লোকজন বের হয়ে আসলে সে পালিয়ে যায়। তার বোন মানসিক প্রতিবন্ধী বলে জানান তিনি।
খাগড়াছড়ি সদর থানার অফিসার ইনচার্জ(ওসি) তারেক মোহাম্মদ আব্দুল হান্নান জানান, কিশোরীর বড় ভাই বাদী হয়ে থানায় মামলা দায়ের করেছে। কিশোরীর ডাক্তারী পরীক্ষা সম্পন্ন হয়েছে। আসামীকে গ্রেফতারে অভিযানে নেমেছে পুলিশ।

About the Author

উপরে