ভারতের কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভায় ঠাঁই পেয়েছেন আরও নয়জন। সম্প্রতি ভারতের কয়েকজন মন্ত্রীর পদত্যাগের ফলে নতুন করে নয়জনের নাম চূড়ান্ত করেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি।

রোববার স্থানীয় সময় সকাল সাড়ে ১০টায় নতুন মন্ত্রীরা শপথ নেবেন বলে টাইমস অব ইন্ডিয়া ও এনডিটিভির খবরে বলা হয়েছে।
গত কয়েকদিন ধরে মোদির মন্ত্রিসভায় উল্লেখযোগ্য রদবদলের ইঙ্গিত মিলছিল, এটা তারই অংশ বলে মনে করা হচ্ছে।

নতুন মন্ত্রী হিসেবে শপথ নিতে যাওয়া নয়জন হলেন, বিহারের বিজেপির এমপি অশ্বিনী কুমার চৌবে, মধ্যপ্রদেশের এমপি বীরেন্দ্র কুমার, উত্তর প্রদেশের রাজ্যসভার সদস্য শিব প্রতাপ শুক্লা, লোকসভার সদস্য রাজ কুমার সিং, অনন্তকুমার হেজ, সাবেক কূটনীতিক হারদীপ সিং পুরি, সাবেক পুলিশ কর্মকর্তা সত্যপাল সিং, আলফোনস কান্নানথানাম ও যোধপুরের লোকসভার সদস্য গজেন্দ্র সিং শেখাওয়াত।

তবে এদের মধ্যে কে কোন মন্ত্রণালয়ের দায়িত্বে যাচ্ছেন তা এখন নির্দিষ্ট হয়নি বলে জানা গেছে। এছাড়া মন্ত্রিসভায় আরও রদবদল করতে পারেন মোদি।

এরআগে গত বৃহস্পতিবার পর্যন্ত মোদির মন্ত্রিসভা পদত্যাগ করেন উমা ভারতী, রাজীব প্রতাপ রুডি, রাধা মোহন সিং, সঞ্জীব বলিয়ান, গিরিরাজ সিংহ, নির্মলা সীতারমণ, ফগ্গন সিং কুলস্তে, কলরাজ মিশ্র, মহেন্দ্র নাথ পাণ্ডে ও বন্দারু দত্তাত্রেয়।

পদত্যাগকারীদের মধ্যে নির্মলা সীতারমণকে বিজেপির প্রধান মুখপাত্রের দায়িত্বে ও রাজীব প্রতাপ রুডিকে দলের সাংগঠনিক দায়িত্বে আনা হতে পারে। তবে মহেন্দ্র পাণ্ডেকে উত্তর প্রদেশ বিজেপির সভাপতি করা হয়েছে।

২০১৯ সালের সাধারণ নির্বাচনের মাধ্যমে দ্বিতীয় মেয়াদে মোদির ক্ষমতা ধরে রাখতে মন্ত্রিসভার এই রদবদল হচ্ছে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

ভারতীয় মন্ত্রিসভার এ পরিবর্তনের মাধ্যমে বর্তমানে মন্ত্রীর সংখ্যা হলো ৭৬ জন। তবে বিধান অনুযায়ী মন্ত্রিসভায় ৮১ জনকে ঠাঁই দিতে পারবেন মোদি।